কোল থেকে নদীতে পড়ে যাওয়া সন্তানকে বাঁচাতে গিয়ে বাবাও নিখোঁজ

নড়াইলের লোহাগড়ায় মধুমতি নদীতে নিখোঁজ বাবা ও ছেলের লাশ উদ্ধারে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীদের তৎপরতা। ছবি : প্রতিনিধি

নড়াইল প্রতিনিধি:

নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলায় কোল থেকে নদীতে পড়ে যাওয়া চার মাসের শিশুসন্তানকে বাঁচাতে গিয়ে নিখোঁজ হয়েছেন পুলিশ কনস্টেবল মোহাম্মদ মুসা (২৫)। গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় কালনাঘাটের মধুমতি নদীতে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

দুর্ঘটনার পর লোহাগড়া ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের কর্মীরা উদ্ধারের চেষ্টা করেও তাদের সন্ধান পায়নি।

নিখোঁজ পুলিশ কনস্টেবল মুসার বাড়ি লোহাগড়া উপজেলার চাঁচই গ্রামে। তিনি ঢাকার রাজারবাগ পুলিশ লাইনে কর্মরত ছিলেন।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গতকাল বিকেলে স্ত্রী ও শিশু সন্তানসহ পরিবারের আটজনকে নিয়ে মধুমতি নদীতে নৌভ্রমণে যান পুলিশ কনস্টেবল মুসা। একপর্যায়ে ট্রলারটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে নির্মাণাধীন সেতুর পিলারে ধাক্কা খায়।

এ সময় মোহাম্মদ মুসার কোল থেকে শিশু সন্তান মধুমতি নদীতে পড়ে যায়। সন্তানকে উদ্ধার করতে মুহূর্তেই বাবা (মুসা) নদীতে ঝাঁপ দেন। একপর্যায়ে মুসাও নিখোঁজ হন।

লোহাগড়া থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মাহফুজ জানান, দুর্ঘটনার পর ফায়ার সার্ভিসসহ স্থানীয় লোকজন তাদের উদ্ধারে তৎপরতা চালিয়েছে। কিন্তু বাবা ও সন্তানকে খুঁজে পাওয়া যায়নি। আজ শনিবার সকাল থেকে আবারও উদ্ধার তৎপরতা চালানো হয়েছে।

সন্ধ্যা ৬টায় শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত নিখোঁজ কনস্টেবল ও শিশু সন্তানকে খুঁজে পাওয়া যায়নি বলে নিশ্চিত করেছেন এসআই মাহফুজ।

বিডি/সারা