টাকা পাচার মামলায় ছাত্রলীগ সভাপতি রিমান্ডে

নিশান মাহমুদ শামীম। ফাইল ছবি

নিজস্ব প্রতিনিধি:

টাকা পাচারের অভিযোগে সিআইডির দায়ের করা মানিলন্ডারিং মামলায় ফরিদপুর জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি নিশান মাহমুদ শামীমকে রিমান্ডে পাঠিয়েছেন আদালত।

শনিবার ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট বাকী বিল্লাহ এই রিমান্ড আদেশ দেন।

এর আগে তাকে আদালতে হাজির করে সাতদিনের রিমান্ড আবেদন করেন পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) তদন্ত কর্মকর্তা। শুনানি শেষে বিচারক আসামির তিনদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

নিশান মাহমুদ শামীমকে মানিলন্ডারিং মামলায় শুক্রবার ঢাকার উত্তরা থেকে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) একটি দল তাকে গ্রেফতার করে। নিশান মাহমুদ ফরিদপুর শহরের মধ্য আলিপুর মহল্লার কামাল মুন্সির ছেলে।

গত ২৬ জুন সিআইডি ঢাকার কাফরুল থানায় শহর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বরকত ও তার ভাই রুবেলের বিরুদ্ধে দুই হাজার কোটি টাকার মানিলন্ডারিংয়ের অভিযোগে একটি মামলা করে। ওই মামলার আরেক আসামি হিসেবে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি নিশান মাহমুদকে গ্রেফতার করা হয়।

এর আগে এই মামলায় রুবেল ও বরকতকে পাঁচদিনের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে সিআইডি। জিজ্ঞাসাবাদে এর সঙ্গে জড়িত অনেকের নাম প্রকাশ করেন আসামিরা।

সিআইডি জানায়, রুবেল-বরকতের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী ছাত্রলীগের সভাপতি নিশান মাহমুদ শামীমকে গ্রেফতার করা হয়। এ ছাড়া নিশান মাহমুদের বিরুদ্ধে হামলা ও চাঁদাবাজির মামলা রয়েছে।

বিডি/রা