বন্ধুদের নিয়ে সাবেক স্ত্রীকে গণ-ধর্ষণ!

ধর্ষণ

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি:

টাঙ্গাইলের সখীপুরে দ্বিতীয়বারের মতো বিয়ে করার প্রলোভন দেখিয়ে বন্ধুদের নিয়ে এক গৃহবধূকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে সাবেক স্বামীর বিরুদ্ধে। ওই গৃহবধূ ঘটনার দুদিন পর বুধবার (২৬ আগস্ট) রাতে তার বর্তমান স্বামীকে সঙ্গে নিয়ে মামলা দায়ের করেছেন।

মামলায় তার সাবেক স্বামী মনির হোসেন (২৫) ও তার তিন বন্ধুকে আসামি করেছেন ওই নারী। ভিকটিমের অভিযোগ, সোমবার রাতে সখীপুর পৌরসভার ৫নং ওয়ার্ডের একটি বাড়িতে মনির হোসেন তার বন্ধুদের নিয়ে তাকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ করে।

এদিকে বৃহস্পতিবার (২৭ আগস্ট) বিকেলে নির্যাতনের শিকার ওই নারীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে পাঠিয়েছে পুলিশ।

ভিকটিম ও মামলার বিবরণে জানা যায়, দুবছর আগে সখীপুর উপজেলার সিলিমপুর গ্রামের রাজমিস্ত্রি মনির হোসেনের সঙ্গে বিয়ে হয় ওই নারীর। ছয় মাস পর মনিরকে ছেড়ে আরেক যুবককে বিয়ে করেন তিনি।

এতে স্ত্রীর প্রতি ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে মনির। কয়েক মাস আগে সাবেক স্ত্রীর সঙ্গে আবারও মোবাইলে যোগাযোগ করে মনির। আবারও তাকে বিয়ে করার জন্য ওই নারীকে চাপ দেয় মনির। গত সোমবার রাতে দ্বিতীয় স্বামীকে না জানিয়ে প্রথম স্বামী মনিরের সঙ্গে পালিয়ে যায় ওই নারী।

বিয়ে করার প্রতিশ্রুতিতে সখীপুর পৌরসভার ৫নং ওয়ার্ডের এক বন্ধুর বাড়িতে তাকে নিয়ে যায় মনির। পরে সেখানে আরও তিন বন্ধুকে সঙ্গে নিয়ে তাকে রাতভর পালাক্রমে ধর্ষণ করে সে। এ ঘটনার দুইদিন পর বুধবার রাতে বর্তমান স্বামীকে সঙ্গে নিয়ে থানায় গিয়ে সাবেক স্বামী ও তার তিন বন্ধুদের নামে ধর্ষণের অভিযোগ এনে মামলা দায়ের করেন ওই নারী।

সখীপুর থানার ওসি (তদন্ত) এ এইচ এম লুৎফুল কবির বলেন, ‘এ ঘটনায় মামলা হয়েছে। ওই গৃহবধূকে বৃহস্পতিবার বিকেলে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনার তদন্ত চলছে। আসামিদের দ্রুতই আইনের আওতায় আনা হবে।’

বিডি/জা