বর্তমান সরকারের আমলেই সব ক্ষেত্রে নারীর মর্যাদা বেড়েছে-অধ্যক্ষ হামিদুল হক চৌধুরী

শফিক আজাদ:

রাষ্ট্র ক্ষমতায় নারীর অবস্থান বিবেচনায় সবাইকে পেছনে ফেলে বিশ্বের এক নম্বরে উঠে আসে বাংলাদেশের নাম। ডাব্লিউইএফের হিসাবে নারীর সার্বিক ক্ষমতায়নে ৪৮তম অবস্থানে বাংলাদেশ। এ অবস্থানের কারণে নারীর রাজনৈতিক ক্ষমতায়ন এ সূচকে বাংলাদেশের অবস্থান পাঁচ। যাহা একমাত্র প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কারনে সম্ভব হয়েছে। এই সরকারের আমলে সব ক্ষেত্রে নারীর মর্যাদা বেড়েছে।

বুধবার (৩০ সেপ্টেম্বর) সকাল ১০টায় উখিয়া উপজেলা পরিষদ হল রুমে সমাজ কল্যাণ ও উন্নয়ন সংস্থা (স্কাস) আয়োজিত জার্মানী দাতা সংস্থা KNH এর সহযোগীতায় অনুষ্ঠিত করোনাকালীন সময়ে ‘নারীর অবস্থা ও অবস্থান জানার জরিপ পূর্বকালীন মতবিনময় সভায়’ উখিয়া উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যক্ষ হামিদুল হক চৌধুরী প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, নারীর উন্নয়নের সার্বিক সূচকে এশিয়া প্রশান্ত মহাসাগরীয় অন্তর্ভুক্ত ২৪ টি দেশের মধ্যে অস্ট্রেলিয়ার পরেই দ্বিতীয় শীর্ষ স্থানে বাংলাদেশ। এই গুলো একমাত্র প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মাধ্যমেই সম্ভব হয়েছে।

উপজেলা চেয়ারম্যান আরো বলেন, নারী এবং পুরুষ দুজনের প্রয়োজন ছিল বিধায় সৃষ্টিকর্তা পৃথিবীর শুরুতে সৃষ্টি করেছেন। নারীর প্রয়োজন ছিল বলেইতো তখন তাকে সৃষ্টি করা হয়েছিল। নারীকে শুধু নারী হিসেবে মনে না করে মানব বা মানুষ হিসেবে মনে করতে হবে। এখানে যেসব নারীরা উপস্থিত রয়েছেন তারা কিন্তু অন্তপুরের বাসিন্দা। তাদের এ পর্যন্ত আসার পেছনে সহযোগিতা রয়েছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার।

আজকে দেশের প্রধানমন্ত্রী একজন নারী, স্পীকার নারী, বিভিন্ন দপ্তরে সচিব নারী, সেনা,পুলিশসহ সব বাহিনীর উচ্চ পদে কিন্তু নারীরা স্থান পেয়েছে। এছাড়াও সরকারি-বেসরকারি গুরুত্বপূর্ণ পদে নারীদের অবস্থান সৃষ্টি হয়েছে এই সরকারের বদৌলতে।

সভায় সভাপতিত্ব করেন স্কাসের চেয়ারম্যান জেসমিন প্রেমা, বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন, জেলা পরিষদ সদস্য আশরাফ জাহান কাজল, উপজেলা মহিলা আওয়ামীলীগ সভাপতি কাউসার জাহান নিগার, দাতা সংস্থা KNH এর ন্যাশনাল কো-অডিনেটর মাটিলদা টিনা বৈদ্য, উখিয়া উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা শিরিন ইসলাম এবং MDM প্রতিনিধি ও AMURT প্রতিনিধিগণ উপস্থিত ছিলেন।

এসময়, উপেজলার ৫ ইউনিয়নের সংরক্ষিত মহিলা সদস্যগণ, কমিউনিটি লিডার (মহিলা), পরিবার পরিকল্পনা সুপারভাইজারগণ, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্টানের মহিলা শিক্ষকগণ, মহিলা সমিতির প্রতিনিধিগণ ছাড়াও সরকারি বেসরকারি প্রতিনিধিগণ উপস্থিত থেকে নারী ক্ষমতায় ও নারী প্রতি সহিংসতা, ধর্ষণ, বাল্য বিবাহসহ সামাজিক নানানধিক নিয়ে মত বিনিময় করেন।

মতবিনিময় সভায় স্থানীয় ও জাতীয় পর্যায়ের গণমাধ্যমকর্মী ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিগণ অংশগ্রহণ করেন। স্কাসের পক্ষে অন্যানদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, শিশু সুরক্ষা ও নারী ক্ষমতায়ণ প্রল্পের সম্মন্বয়ক রোনাল্ড চাকমা, প্রোগ্রাম কো-অর্ডিনেটর মো. সালেহ উদ্দিন, সিনিয়র সাইকোলজিষ্ট তৌহিদুল মোস্তফা।

মতবিনিময় সভায় প্রেজেন্টেশন উপস্থাপনা করেন পিএসএস কো-অর্ডিনেটর তারিকুল ইসলাম ও টেকনিক্যাল অফিসার তাসনিন আক্তার।

এদিকে সকাল ১০টায় জাতীয় কন্যা শিশু দিবস উপলক্ষ্যে উপজেলা চত্বরে স্কাসের সহযোগিতায় ও উপজেলা প্রসাশন ও মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তার কার্যালয়ের আয়োজনে ‘আমরা সবাই সোচ্চার, বিশ্ব হবে সমতার’ এই পতিপাদ্য বিষয় কে সামনে নিয়ে এক মানববন্ধন ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। পরে মোমবাতি প্রজ্জ্বলন করেন।

 বিডি/শআ/উ/কক্স