বালিশকাণ্ডের তদন্ত ৬ মাসের মধ্যে নিষ্পত্তির নির্দেশ

রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণ প্রকল্প। ফাইল ছবি

নিজস্ব প্রতিবেদক :

রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণ প্রকল্পে আলোচিত বালিশকাণ্ডের ঘটনায় দুদকের দায়ের করা তিন মামলার তদন্ত ছয় মাসের মধ্যে শেষ করার নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে এসব মামলায় প্রকৌশলী শফিকুল ইসলামের জামিন আবেদন ছয় মাসের জন্য মুলতবি রেখেছেন আদালত।

আজ সোমবার বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি আহমেদ সোহেলের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালতে আসামির পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট সাঈদ আহমেদ রাজা। দুদকের পক্ষে অ্যাডভোকেট খুরশিদ আলম খান ও রাষ্ট্রপক্ষে ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ কে এম আমিন উদ্দিন মানিক শুনানি করেন।

পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলার রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পে আবাসিক ভবনে (গ্রিন সিটি) আসবাবপত্র সরবরাহে অস্বাভাবিক দাম ধরে দুর্নীতি ও কেনাকাটায় অনিয়ম করা হয় বলে অভিযোগ ওঠে। সেখানে একটি বালিশের পেছনে ছয় হাজার ৭১৭ টাকা ব্যয় দেখানোর খবর গণমাধ্যমে আসায় এটা ‘বালিশ দুর্নীতি’ হিসেবে পরিচয় পেয়েছে।

এ বিষয়ে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) গত ১৩ ডিসেম্বর ১৩ জনের বিরুদ্ধে ৩১ কোটি ২৪ লাখ টাকা আত্মসাতের দায়ে চারটি মামলা করেন। এর মধ্যে তিনটি মামলার আসামি প্রকৌশলী শফিকুল ইসলাম।