রাজশাহী ডিবির পরিদর্শক খাইরুল অবশেষে বরখাস্ত

রাজশাহী ব্যুরো:

রাজশাহী মহানগর পুলিশের (আরএমপি) গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) বহুল আলোচিত পুলিশ পরিদর্শক খাইরুল ইসলামকে অবশেষে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

পুলিশ সদর দফতরের এক আদেশে সোমবার তাকে সিলেট রেঞ্জে সংযুক্ত করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন আরএমপির মুখপাত্র অতিরিক্ত উপ-কমিশনার গোলাম রুহুল কুদ্দুস।

সংশ্লিষ্ট একটি সূত্র জানায়, গত ১৩ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় রাজশাহী মহানগরীর উপকণ্ঠ বায়া পালপাড়া এলাকায় নওহাটা পৌরসভার এক সহকারী প্রকৌশলীকে নারীসহ আটক করেন পুলিশ পরিদর্শক খাইরুল ইসলাম।

এরপর ওই প্রকৌশলীর কাছে পাঁচ লাখ টাকা দাবি করেন তিনি। দেন-দরবারের একপর্যায়ে ১ লাখ ৯৫ হাজার টাকা  নগদ এবং তিন লাখ টাকা চেক গ্রহণের পর ওই প্রকৌশলীকে ছেড়ে দেন পুলিশ পরিদর্শক খাইরুল।

বিষয়টি নিয়ে ওই সময়ে কয়েকটি গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হয়। এরপর বিষয়টি নিয়ে তদন্ত শুরু করে আরএমপি।

আরএমপির উপ-কমিশনার পর্যায়ের এক কর্মকর্তা খাইরুলের বিরুদ্ধে অভিযোগের বিষয়ে তদন্ত করে সত্যতা পান। এরপর তদন্ত রিপোর্ট পুলিশ সদর দফতরে পাঠানো হলে সোমবার খাইরুল ইসলামকে সাময়িক বরখাস্তের নির্দেশ আসে। তাকে আরএমপি ডিবি থেকে সিলেট রেঞ্জে সংযুক্ত করা হয়।

পুলিশের একাধিক সূত্র জানায়, খাইরুল ইসলামের বিরুদ্ধে মাদকসেবন, মাদক ব্যবসায়ীদের সঙ্গে সখ্যতা, মামলার ভয় দেখিয়ে টাকা আদায় ও ফাঁসিয়ে দেয়ার ভয় দেখানো, শৃঙ্খলাবিরোধী কর্মকাণ্ডে লিপ্ত থাকাসহ নানা অভিযোগ রয়েছে।

এর আগে ২০১৪ সালে রাজশাহী মহানগরীর বোয়ালিয়া থানার ওসি (তদন্ত) হিসেবে দায়িত্ব পালনকালে দুই শিক্ষার্থীকে নির্মম নির্যাতনের অভিযোগে তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।

bd/RB