রাসূল বিদ্ধেশী ফ্রান্সের সকল পন্য বয়কট করে নবীপ্রেম প্রকাশ করুন

নিজস্ব সংবাদদাতা:

ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলনের কেন্দ্রীয় কওমি মাদরাসা সম্পাদক নুরুল বশর আজিজী বলেন, ফ্রান্স সরকার রাষ্ট্রীয়ভাবে মানবতার মুক্তির দূত মহানবী হযরত মুহাম্মদ সা.-এর ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শন করে মুসলিম উম্মাহ’র কলিজায় আঘাত করেছে। ফ্রান্সের মাতাল প্রধানমন্ত্রী ইমান্যুয়েল ম্যাক্রো ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশ করে মুসলিম বিদ্বেষী হিসেবে পরিচয় দিয়েছে।

অবিলম্বে ব্যঙ্গচিত্র প্রত্যাহার করে বিশ্ব মুসলমানদের কাছে ক্ষমা প্রার্থণা করতে হবে। অন্যথায় বিশ্বমুসলিমরা ফ্রান্সকে চিরতরে বয়কট করবে। তিনি বলেন, জাতিসংঘ বিশ্বব্যাপী অশান্তি দূর করে শান্তি প্রতিষ্ঠার দায়িত্ব নিয়ে প্রতিষ্ঠা লাভ করলেও মুসলমানদের স্বার্থ রক্ষায় জাতিসংঘ ব্যর্থ হয়েছে।

তিনি জাতিসংঘ এবং ওআইসিকে ফ্র্যান্সের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থান গ্রহণ করার আহবান জানান। তিনি বাংলাদেশ সরকারকে সংখ্যাগরিষ্ট মুসলমানদের হৃদয়ের এ দাবি অনুধাবন করে সংসদে ফ্রান্সের বিরুদ্ধে নিন্দা প্রস্তাব জ্ঞাপনের জন্য দাবি জানান।

আজ ৩০ অক্টোবর- জুমাবার বাদ আছর টেকনাফ উপজেলা সম্মিলিত ওলামা পরিষদের উদ্যোগে আয়োজিত ফ্রান্সে প্রকাশ্যে রাসূল সা.কে ব্যঙ্গ করে কার্টুন প্রকাশের প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল পরবর্তী এক সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলনের কেন্দ্রীয় কওমি মাদরাসা বিষয়ক সম্পাদক নুরুল বশর আজিজী এসব কথা বলেন।

হ্নীলি স্টেশন চত্বরে আয়োজিত এ সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন হ্নীলা জামিয়া দারুস সুন্নাহ’র সহকারী পরিচালক মাও: মুফতি আলী আহমদ, জামিয়ার শিক্ষা পরিচালক মাও: মিছবাহ, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ টেকনাফ উপজেলার সিনিয়র সহ-সভাপতি মাও: আব্দুল খালেক নিজামী, সেক্রেটারি মাও: হাফেজ আব্দুল্লাহ, মাও: দিলদার আহমদ, হাফেজ মাও: জসিম উদ্দিন, আলী আহমদ মেম্বার, মাও: নূরুল আমিন মাদানী ও ছাত্রনেতা মোহাম্মদ আবদুল জলিল প্রমূখ।

বক্তারা বলেন, বাকস্বাধীনতার নামে ফ্রান্স ইসলাম বিরোধী চরম অসভ্য ও নোংরা খেলায় মেতে উঠেছে। ফ্রান্সের প্রধানমন্ত্রীও এর আগে ইসলাম ধর্ম নিয়ে অবমাননাকর বক্তব্য দিয়েছে। এসব উগ্র কর্মকান্ড প্রমাণ করে ফ্রান্স সরকার ইসলাম ও মুসলমানদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেছে। ফ্রান্স সরকারের বিরুদ্ধে অবস্থান নেয়া বিশ্বের মুসলমানদের নৈতিক ও ঈমানি দায়িত্ব।

তারা আরো বলেন, ফ্রান্স সরকারকে অবিলম্বে এ ধৃষ্টতাপ‚র্ণ ব্যঙ্গচিত্র প্রচারনা বন্ধ করতে হবে। অন্যথায় ফ্রান্সের বিরুদ্ধে সারাবিশ্বে প্রতিবাদের দাবানল ছড়িয়ে পরবে এবং নবীপ্রেমিকরা ফ্রান্সের সকল পণ্যবর্জন করতে বাধ্য হবে।

বিক্ষোভ সমাবেশে আরো উপস্থিতি ছিলেন, মাও: কারী ফরিদুল আলম, সাংবাদিক তাহের নঈম, মাও: নূর মুহাম্মদ নূরানী, কারী: মাকছুদুল আলম, হাফেজ আলী আহমদ মাও: মাও: আব্দুল হাফিজ, মাও: আবু বকর ছিদ্দিক, হাজী মোহাম্মদ ইসমাইল, মাও ইসমাইল কাশেমী প্রমূখ।

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ টেকনাফ উপজেলার জয়েন্ট সেক্রেটারি ও সমাবেশ বাস্তবায়ন কমিটির আহ্বায়ক মাওলানা এনামুল হক মঞ্জুর এর পরিচালনায় বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

আছর নামাজের পর একটি বিশাল মিছিল হ্নীলা জামিয়া দারুস সুন্নাহর প্রধান গেইট থেকে বের হয়ে হ্নীলা স্টেশনসহ আশপাশের অলিগলি প্রদক্ষিণ করে হ্নীলা বাজার চৌমুহনী মোড়ে এক সমাবেশের মাধ্যমে শেষ করে।