রোহিঙ্গা ক্যাম্পে অভিযান: অস্ত্রসহ আটক-৬

নিজস্ব প্রতিনিধি, টেকনাফ:

কক্সবাজারের টেকনাফের পুটিবনিয়া রোহিঙ্গা শিবিরে অভিযান চালিয়ে অস্ত্র সহ ৬ জন রোহিঙ্গাকে আটক করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। আটককৃতদের টেকনাফ থানায় সোপর্দ করা হয়েছে। ২৫ আগস্ট সন্ধ্যার দিকে হোয়াইক্যং ইউনিয়নের উনচিপ্রাং পুটিবনিয়া রোহিঙ্গা শিবিরে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী এ অভিযান চালায়। এ সময় ৯ রোহিঙ্গাদের আটক ও দেশীয় একনলা দুইটি বন্দুক, কিরিচ, সাত রাউন্ড কার্তূজ উদ্ধার করা হয়।

আটককৃতরা হলেন, ওই ক্যাম্পের রহমত উল্লাহ’র ছেলে নুর হোসেন, হাবিবুল্লাহর ছেলে জাফর আলম, জহুর মল্লিকের ছেলে মো. আলম, আহমদ হোসেনের ছেলে আব্দু রহমান, নুর হোসেন, আবু সামার ছেলে আবু সাদেক, আব্দু সালামের ছেলে মো. আমিন, শাহ আলমের ছেলে মো. সাদেক ও বালুখালী শিবিরের নজির আহমদের ছেলে মো. আমান উল্লাহ।

আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সূত্রে জানা যায়, উনচিপ্রাং পুটিবনিয়া ২২ নং রোহিঙ্গা শিবিরে এ বøকের মধ্যে আল ইয়াকিন (রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী দু’গ্রæপ) ৩০/৩৫ রাউন্ড গুলি ফায়ার করে ক্যাম্পে আতংক সৃষ্টি করা হয়। পাশাপাশি রোহিঙ্গদের অনেক ঘর বাড়িতে হানা দেয়া হয়। বিষয়টি ভয়াবহ অবস্থা সৃষ্টির প্রাক্কালে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী অভিযান চালিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা হয়।

পুলিশের ক্যাম্প ইনচার্জ মো. আনোয়ার হোসেন জানান, কিছু দূস্কৃতকারী রোহিঙ্গা বেশ কিছুদিন ধরে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে মারমুখী অবস্থানে ছিলো। এরই প্রেক্ষিতে আজকে খারাপ পরিস্থিতি হলে। অভিযান চালিয়ে ওইসব অস্ত্র সহ ৯ জন আটক করা হয়েছিল।

সেখান থেকে যাচাই বাছাই করে তিনজনকে ছেড়ে দেয়া হয়। বাকি ৬ রোহিঙ্গাকে টেকনাফ থানায় সোপর্দ করা হয়েছে। তিনি বাদি হয়ে টেকনাফ থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

উল্লেখ্য, দীর্ঘদিন ধরে রোহিঙ্গা শিবিরগুলোতে অপরাধমূলক কার্যকলাপ অব্যাহত রয়েছে।

বিডি/রো