রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ফের দু’গ্রুপের সংঘর্ষ-গুলিবর্ষণ, নারী নিহত

 রোহিঙ্গা ক্যাম্প। ফাইল ছবি

নিজস্ব প্রতিবেদক:

কক্সবাজারের উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আরসা ও মুন্না গ্রুপের মাঝে দফায় দফায় হামলা ও গুলিবর্ষণের ঘটনায় এক রোহিঙ্গা নারীর মৃত্যু হয়েছে। নিহত নারীর নাম সমিরা আক্তার (৪১)।

বৃহস্পতিবার (১ অক্টোবর) রাত ১২টা থেকে ভোর পর্যন্ত কুতুপালং ক্যাম্পের নিয়ন্ত্রণকে কেন্দ্র করে দুই সন্ত্রাসী গ্রুপের মধ্যে দফায় দফায় গুলিবর্ষণের এই ঘটনা ঘটে।

২ নম্বর ক্যাম্পের হেড মাঝি সিরাজুল মোস্তফা জানান, গোলাগুলিতে কুতুপালং ৩ নম্বর ক্যাম্পের এফ ব্লকের আশ্রিত রোহিঙ্গা ছৈয়দ আলমের মেয়ে সমিরা গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যায়। এ সময় সন্ত্রাসীদের হামলায় আরো ৭ রোহিঙ্গা আহত হয়েছে। তাদেরকে অন্যান্য রোহিঙ্গারা আহত অবস্থায় উদ্ধার করে কুতুপালং এম এস এফ হাসপাতালে ভর্তি করেন। বর্তমানে ক্যাম্পে থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।

রেজিস্ট্রার্ড ক্যাম্পের চেয়ারম্যান হাফেজ জালাল আহমদ জানান, ক্যাম্পের মধ্যে আরসা গ্রুপ ও মুন্না গ্রুপের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে দ্বন্দ্বের কারণে দিন দিন পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে। ফলে নিরীহ রোহিঙ্গারা আতঙ্কিত হয়ে ভয়ভীতিতে জীবন যাপন করছে।

উখিয়া থানার ওসি আহমেদ সঞ্জুর মোরশেদ জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়ে লাশ উদ্ধার করে কক্সবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। অভিযোগ পেলে আইনানুগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বিডি/কক্স/রো