সৌদি আরবে হুতিদের একাধিক ক্ষেপণাস্ত্র ও ড্রোন হামলা

ছবি: আল জাজিরা

অনলাইন ডেস্ক:

সৌদি আরবের রাজধানী রিয়াদে ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ও ড্রোন হামলা চালিয়েছে হুতি বিদ্রোহীরা।

বৃহস্পতিবার টুইটারে ওই সামরিক গোষ্ঠীর মুখপাত্র ইয়াহইয়া সারিয়া এমন খবর দিয়েছেন বলে আল জাজিরা জানিয়েছে। তবে সৌদি কর্তৃপক্ষ কয়েকটি ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ও বিস্ফোরকভর্তি ড্রোন ভূপাতিত করার দাবি করেছে।

হুতি মুখপাত্র ইয়াহিয়া সারিয়া জানান, ডুল-ফাক্কার ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ও তিনটি সামাদ-৩ ড্রোন ব্যবহার করে রিয়াদের অজ্ঞাত স্থানে হামলা চালানো হয়েছে।

এদিকে নাজরান শহরে হামলা চালাতে পাঠানো ইয়েমেনের হুতি বিদ্রোহীদের দুটি বিস্ফোরকভর্তি ড্রোন ধ্বংস করার দাবি করেছে সৌদি আরব।

হুতিদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সৌদি নেতৃত্বাধীন জোটের বরাতে বার্তা সংস্থা এসপিএর খবরে বলা হয়, বৃহস্পতিবার ভোররাতে এসব হামলার চেষ্টা হয়। চলতি মাসে সৌদি আরবের মূলভূখন্ডে হুতিরা একের পর এক ড্রোন হামলা চালাচ্ছে বলেও জোট বাহিনী জানায়।

২০১৪ সালের শেষ দিকে শিয়া হুতি বিদ্রোহীরা ইয়েমেনের রাজধানী সানা দখল করে সুন্নি সরকারকে ক্ষমতাচ্যুত করে।

এরপর তারা দেশের অধিকাংশ স্থান দখল করে নিলে ২০১৫ সালের মার্চের শেষ দিকে ইয়েমেনের গৃহযুদ্ধে হস্তক্ষেপ করে প্রতিবেশী সৌদি আরবের নেতৃত্বাধীন আরব বাহিনীগুলোর জোট।

ইয়েমেনে সৌদি নেতৃত্বাধীন জোটের বিমান হামলা শুরু হওয়ার পর থেকে সেখানে মানবিক বিপর্যয় দেখা দিয়েছে।

তারপর থেকে সৌদি জোটের বেপরোয়া বোমাবর্ষণ ও বিভিন্ন পক্ষের পাল্টাপাল্টি লড়াইয়ে ক্ষতবিক্ষত হয়েছে ইয়েমেন।

চলতি বছরের প্রথমদিকে করোনাভাইরাসের কারণে দুই পক্ষের সম্মতিতে একটি সাময়িক যুদ্ধবিরতির শুরু হয়েছিল। কিন্তু মে মাসে যুদ্ধবিরতির মেয়াদ শেষ হওয়ার পর থেকে সীমান্ত পেরিয়ে সৌদি আরবে হুতি বাহিনীর হামলা বৃদ্ধি পেয়েছে।

বিডি/আ